শান্তির ধর্ম প্রকৃত ইসলামের উপর একটি অন্যন্য সাধারন ওয়েবসাইট


যথেচ্ছা করারোপ করা রাস্ট্রীয় ডাকাতির সমান


কয়েকদিন আগে দেখলাম, অর্থমন্ত্রীর সাথে ব্যবসায়ী নেতৃবিন্দের উত্তপ্ত কথা কাটাকাটি হয়। একজন  ব্যবসায়ী নেতা ১৫% এর নিচে যদি ভ্যাট না কমানো হয় তাহলে আন্দোলনে নামতে পারেন বলে বলেন; অন্যদিকে অর্থমন্ত্রী এ ধরনের আন্দোলন দমন করবেন বলে হুমকী দেন! এ কোন ধরনের অসভ্যতা?! নাগরিকদের উপর যথেচ্ছা করারোপ করা রাস্ট্রীয় ডাকাতির সমান; এটা যে কোন সচেতন নাগরিকের বুঝতে অসুবিধা হয় না। উন্নয়নের নামে কোন সভ্য সরকার খামখেয়ালীভাবে জনগনের উপর ট্যাক্স বসাতে পারে না।

ব্যবসায়ী নেতৃবিন্দরা এ ব্যাপারে যে প্রতিবাদ করেছেন তা আমরা শ্রদ্ধা করি। ট্যাক্স বলেন বা ভ্যাট বা যে নামই দেন না কেন, তার বোঝা তো আল্টিমেটলি জনগনকেই বহন করতে হবে। এমনকি খোদ আওয়ামীলীগের অনেক প্রভাবশালী নেতারাও ঐ ভ্যাটের কড়া সমালোচনা করেছেন।

আমি নিজেও আওয়ামীলীগের একজন দৃড় সমর্থক এবং শুভাকাংখী কারন আওয়ামীলীগ দেশের বৃহত্তর ধর্মনিরেপেক্ষ প্রগতিশীল দল।  আগেকার দিনের প্রজারঞ্জক রাজা-বাদশারাও খামখেয়ালীভাবে প্রজাদের উপর কর আরোপ করত না।

উন্নয়নের নামে কোন সরকার জনগনের  উপর কোনভাবেই অতিরিক্ত কর বসাতে পারে না। দেশে  কতটা উন্নয়ন হবে, কত দ্রুত উন্নয়ন হবে সেটাও ঠিক করবে জনগন, বিশেষ কোন সরকার নয়। এসব ব্যাপারে দেশের অধিকাংশ নাগরিকের মতামত নিরুপন সাপেক্ষেই কেবল কোন সরকার সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

মনে রাখবেন প্রধানমন্ত্রী থেকে সরকারের সবারই বেতন-ভাতা এবং অন্যন্য সুযোগ সুবিধা জনগনই দিয়ে থাকে; সেই হিসাবে প্রধানমন্ত্রী এবং তার সরকার জনগনের সেবক – প্রভু নয়। ধন্যবাদ।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।