শান্তির ধর্ম প্রকৃত ইসলামের উপর একটি অন্যন্য সাধারন ওয়েবসাইট


ভ্রান্ত ধর্মবিশ্বাস-মহা সর্বনাশা জিনিস


ভ্রান্ত ধর্মবিশ্বাস একজন মানুষকে মানুষের স্তর থেকে পশুর চেয়েও নীচ স্তরে নিয়ে যায়। আবার সঠিক ধর্মবিশ্বাস একজন মানুষকে মহান করে। যেমন অনেক জংগী ভাইয়েরা জিহাদ করে শয়তানের অনুসারীদের খতম করে তথাকথিত ইসলামী শাসন ব্যবস্থা প্রতিস্টা করতে চাই। কিন্তু ওরা বুঝেই না ইসলামটা আসলে কি! আছে কিছু অন্ধ, যুক্তিহীন বিশ্বাস।

যেমন জংগী ভাইয়েরা বিশ্বাস করে জিহাদ করে শহীদ হতে পারলে বেহেস্তে ৭২ জন হুর পাওয়া যাবে! তাদের সাথে কতই না আমদফুর্তি করা যাবে! ৭২ জন হুর একজন পুরূষ মানুষের কি লাগে?! ৩ থেকে ৪ জন হুর বড়জোর একজন পুরুষের হয়ত প্রয়োজন হতে পারে।

তাহলে জিহাদ করে শহীদ হয়ে বেহেস্তে যে ৭২ জন হুর পাওয়া যাবে তা ডাহা মিথ্যা হাদিস! আল্লাহ রাব্বুল আলামীনের আর কাজ নেই যে ওসব বর্বর, মানবতার শত্রু, অপদার্থদের ৭২ জন হুর দেবেন বেহেস্থে।

কাজেই জংগী ভাইয়েরা ভুয়া হাদিসের উপর ভিত্তি করে ৭২ জন হুর পাওয়ার আশা করবেন না। আপনি অন্ধভাবে কোন কিছু বিশ্বাস করলেই যে তা বাস্তবেও থাকবে তা তো নয়। মানুষ হয়ে জন্মে আপনারা এত বোকা হলেন কি করে?!

বেহেস্তে অনেক হুর পাওয়ার আশায় এমন কোন জঘন্য এবং বর্বর কাজ নেই (যেমন মানূষ হয়ে আরেকজন মানুষকে জবাই করছেন, এমনকি মসজিদে ঢুকে আত্বঘাতি বোমা ফাটিয়ে নিজেকে শেষ করছেন এবং বহু নিরাপরাধ মানুষকে হত্যা করছেন ইত্যাদি) যা আপনার করছেন না।

Islamic terrorists

সঠিক ইসলাম ধর্ম বুঝুন আগে। আমাদের রাসুল সাঃ হলেন সমগ্র মানবজাতির জন্য রহমত স্বরুপ। তিনি মানবজাতিকে শান্তি, ক্ষমা, ভালবাসা, উদারতা, দান, সহমর্মিতা ইত্যাদির শিক্ষা দিতে এসেছিলেন। তিনি জীবনে যেটুকু যুদ্ধ করেছেন তা নিতান্তই আত্বরক্ষা করার জন্য, কাউকেই আক্রমন করার জন্য নয়। জংগী ভাইয়েরা, নিজের মধ্যে যে লোভী এবং বর্বর শয়তানটা বাস করে তার বিরুদ্ধে আগে জিহাদ করুন কারন সেটাই হল বড় জেহাদ (জেহাদে আকবর)। রাসুল সাঃ এর প্রকৃত শিক্ষা অনুসরন করুন। রাসুল সাঃ এর নামে ভুয়া শিক্ষা এবং বিশ্বাস থেকে নিজেকে আত্বরক্ষা করুন।

Wonderful birds

রাসুল সাঃ এর প্রকৃত শিক্ষা এবং তাঁর নামে ভুয়া শিক্ষা এবং বিশ্বাস এর পার্থক্য করাটা এবং বোঝাটা এত সহজ কাজ না। বহু মাওলানা, আল্লামা, মুফতি বা তথাকথিত আলেমরা ইসলাম থেকে বহু দূরে, ধর্মব্যবসায়ী, অনেক ক্ষেত্রেই শয়তানের অনুসারী, কিন্তু তারা তা বোঝে না বা বোঝার চেস্টা করে না।

ওদের অন্ধ অনুসরন করে নিজের সর্বনাশ করবেন না। রাসুল সাঃ এর প্রকৃত শিক্ষা কি তা আগে বোঝার চেস্টা করুন। তাহলে দেখবেন দুনিয়াতেও শান্তি পাবেন আর কামিয়াবী হবেন এবং পরকালেও নাজাত পাবেন। ধন্যবাদ।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।