শান্তির ধর্ম প্রকৃত ইসলামের উপর একটি অন্যন্য সাধারন ওয়েবসাইট


আল্লাহর জমিনে আল্লাহর দ্বীন প্রতিস্টার ভন্ডামী


জামাত-শিবির, আল কায়েদা, আইএস, তালেবান, বোকোহারাম, জেএমবি ইত্যাদি তথাকথিত ইসলামী দলগুলোর একটা চটকদার স্লোগান হল তারা “আল্লাহর জমিনে আল্লাহর দ্বীন প্রতিস্টা” করতে চাই।

ওদের কথা মত মনে হয় আল্লাহ খুবই দুর্বল! মহান আল্লাহ এই সুবিশাল মহাবিশ্ব সৃস্টি করেছেন যেখানে গোটা পৃথিবীটাই একটা বালিকনার সমানও হয় না সেখানে আল্লাহ নিজে তাঁর জমিনে দ্বীন প্রতিস্টা করতে ব্যর্থ হয়ে সেই দায়িত্ব এখন ওসব সন্তাসী দলগুলোর উপরে ছেড়ে দিয়েছেন!

ওসব মুর্খ  সন্তাসীরা আল্লাহহে সাহায্য করছে কারন ওদের সাহায্য ছাড়া  আল্লাহর পক্ষে তাঁর জমিনে তাঁর দ্বীন প্রতিস্টা সম্ভব না! ধোকাবাজির একটা সীমা থাকা চাই।

মহান আল্লাহ মোটেও দুর্বল না। মহান আল্লাহ সর্বশক্তিমান, মহান আল্লাহ সর্বজ্ঞ, মহান আল্লাহ কার মুখাপেক্ষি নন। কাজেই মহান আল্লাহর যদি এটাই ইচ্ছা হত যে  তাঁর জমিনে তাঁর দ্বীন প্রতিস্টা হতে হবে, তবে তাঁর একটি মাত্র ইশারাই যথেস্ট ছিল।

ওসব সন্তাসীদের মহান আল্লাহর কোনই প্রয়োজন নেই তাঁর জমিনে তাঁর দ্বীন প্রতিস্টা করার জন্য। আসলে প্রকৃত ব্যাপার হল মহান আল্লাহ মোটেও চান না যে তাঁর জমিনে ওসব সন্তাসী আর বর্বরদের দ্বীন প্রতিস্টা হোক। কারনঃ

[2 সূরা আল্ বাকারাহ্ 256] দ্বীনের ব্যাপারে কোন জবরদস্তি বা বাধ্য-বাধকতা নেই।…

[10 সূরা ইউনুস 99] আর তোমার পরওয়ারদেগার যদি চাইতেন, তবে পৃথিবীর বুকে যত মানুষ রয়েছে, তাদের সবাই ঈমান নিয়ে আসত সমবেতভাবে। তুমি কি মানুষের উপর জবরদস্তী করবে ঈমান আনার জন্য? 

[6 সূরা আন-আম 107] যদি আল্লাহ চাইতেন তবে তারা (মুশরিকরা) শেরক করত না। আমি তোমাকে তাদের সংরক্ষক করিনি এবং তুমি তাদের কার্যনির্বাহী নও।

[109 সূরা কাফিরুন 6] তোমাদের ধর্ম তোমাদের জন্যে এবং আমার ধর্ম আমার জন্যে। 

কাজেই “আল্লাহর জমিনে আল্লাহর দ্বীন প্রতিস্টা” করার যে স্লোগান তা মহান আল্লাহকে চরম অপমান করার সামিল। মহান আল্লাহ কোল দুর্বল সত্বা না যে ওসব সন্তাসীরা মহান আল্লাহকে সাহায্য করতে পারে তাঁর জমিনে তাঁর দ্বীন প্রতিস্টা করার জন্য।  মহান আল্লাহ ওসব সন্ত্রাসীদের হেদায়েত দান করুন এবং সঠিক ইসলাম বোঝার তৌফিক দান করুন। আমিন। সবাইকে ধন্যবাদ।

07/23/2016. Copyright © www.QuranResearchBD.org

 


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*