শান্তির ধর্ম প্রকৃত ইসলামের উপর একটি অন্যন্য সাধারন ওয়েবসাইট


ধর্মের শত্রু, ধর্মের নামে অধর্ম ও প্রকৃত ধর্ম


ধর্মের নামে যারা মানুষের মধ্যে মারামারী, হানহানি, হত্যা, ঘৃনা ছড়ায় তারা সত্যে এবং প্রকৃত ধর্মের শত্রু। ওদেরকে কঠোরভাবে দমন করতে হবে। ধর্ম হল মুলত প্রমান ছাড়াই বিশ্বাসের ব্যাপার ফলে মানুষের মধ্যে হরেক রকমের বিশ্বাস সৃস্টি হয়েছে।

কেও এক খোদায় বিশ্বাস করে, কেওবা একের-মধ্যে-তিন খোদায় আবার বহু মানুষ অসংখ্য খোদায় বিশ্বাস করে! আবার কেও কোন খোদায়ই বিশ্বাস করে না! প্রমান ছাড়া বিশ্বাসটাই একটা বড় সমস্যা কারন আমাদের বাস্তব জীবনেও দেখি আমরা বিশ্বাস বা আশা করি এক কিন্তু ঘটে অন্য কিছু! অন্ধ বিশ্বাস আপনার জীবনে সর্বনাশ ডেকে আনতে পারে। অন্ধ বিশ্বাসের ব্যাপারে সাবধান হোন।

nice-pic1

যেখানে আপনি আপনার বিশেষ ধর্ম বিশ্বাসের ব্যাপারে সরাসরী কোন প্রমান দিতে পারছেন না, সেখানে আপনি যদি আপনার ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করেন তাহলে আপনার চেয়ে বড় মুর্খ এবং আহম্মক এই দুনিয়াতে আর কে হবে? আমাদের নবী মুহাম্মদ সঃ ধর্ম নিয়ে বাড়াবাড়ি করতে কঠরভাবে নিষেধ করে গেছেন এবং পবিত্র কুরআনও ধর্মের ব্যাপারে জবরদোস্তি না করতে বলে।

এখানে উল্লেখ্য যে কোন বিশেষ ধর্মপ্রন্থের উদ্ধৃতি কোন প্রমান হতে পারে না কারন প্রত্যেক ধর্মের অনুসারীরাই তাদের স্ব স্ব ধর্মপ্রন্থকে চুড়ান্ত সত্য বলে বিশ্বাস করে!  জ্ঞানী হোন, এখন থেকেই ধর্ম নিয়ে সব ধরনের বাড়াবাড়ি তথা মারামারী, হানহানি, হত্যা, ঘৃনা ইত্যাদি ছড়ানো বন্ধ করুন।

আপনি যে ধর্মেই বিশ্বাস করুন না কেন মানুষের মধ্যে ভালবাসা, ক্ষমা, বিনয়, নিঃস্বার্থ দান, সম্প্রীতি, উদারতা, এবং বদান্যতার প্রসার ঘটান এবং সব ধরনের অন্যায়, অবিচার, জুলুম এবং দূর্নীতির বিরুদ্ধে কাজ করুন যা হবে ধর্মের সবচেয়ে বড় কাজ যা মহান আল্লাহ (গড, ইশ্বর বা যে ভাল নামেই তাঁকে ডাকুন না কেন) কোরআন, বাইবেল এবং অন্যান্য ধর্মগ্রন্থে বলেছেন। ধন্যবাদ।

Copyright © www.QuranResearchBD.org

 


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*