শান্তির ধর্ম প্রকৃত ইসলামের উপর একটি অন্যন্য সাধারন ওয়েবসাইট


বউ পেটানো কি ইসলামসম্মত?


[4 সূরা আন নিসা  34] পুরুষেরা নারীদের উপর দায়িত্বশীল জন্য যে, আল্লাহ একের উপর অন্যের বৈশিষ্ট্য দান করেছেন এবং জন্য যে, তারা তাদের অর্থ ব্যয় করে সে মতে নেককার স্ত্রীলোকগণ হয় অনুগতা এবং আল্লাহ যা হেফাযতযোগ্য করে দিয়েছেন লোক চক্ষুর অন্তরালেও তার হেফাযত করে আর যাদের মধ্যে অবাধ্যতার আশঙ্কা কর তাদের সদুপদেশ দাও, তাদের শয্যা ত্যাগ কর এবং প্রহার কর যদি তাতে তারা বাধ্য হয়ে যায়, তবে আর তাদের জন্য অন্য কোন পথ অনুসন্ধান করো না নিশ্চয় আল্লাহ সবার উপর শ্রেষ্ঠ

কিন্তু এই প্রহার কর” শব্দটি আরবীতে একটা বহু অর্থবোধক শব্দ। এর আরো অনেক অর্থ হতে পারে যেমন, “উপেক্ষা করা”, “নিন্দা করা”, “ঢেকে দেওয়া”, “ব্যাখ্যা করা” ইত্যাদি। উক্ত শব্দের আরো অনেক অর্থ হতে পারে।

মহান আল্লাহ কুরআনের অন্যত্র বলছেন, পুরুষ এবং নারী মানুষ হিসাবে সমান।

[3 সূরা আল্ ইমরান 195] অতঃপর তাদের পালনকর্তা তাদের দোয়া (এই বলে) কবুল করে নিলেন যে, আমি তোমাদের কোন পরিশ্রমকারীর পরিশ্রমই বিনষ্ট করি না, তা সে পুরুষ হোক কিংবা স্ত্রীলোক, তোমরা পরস্পর একে অন্যের সমান…

কাজেই আপনি যদি বউ পেটানো সঠিক মনে করেন তাহলে বউও আপনাকে পেটাতে পারে!  কাজেই পেটা-পিটির এই চিন্তা একেবারে বাদ দিন। যারা  উক্ত আয়াতে প্রহার কর” অনুবাদ করেছেন এটা তাদের কুরআন বুঝার ভুল। ভুল তো মানুষের হতেই পারে।

বউ এর সাথে কোন ভাবেই যদি বনিবনা না হয় তাহলে তালাক বা ছাড়াছাড়ির দিকেই যাওয়া উচিত, পেটা-পিটির চিন্তা না করে। এটাই মন্দের ভাল। তবে রাগের মাথায় কোন সিদ্ধান্ত নিবেন না। অনেক সময় নিয়ে ধীরে সুস্থে সিদ্ধান্ত নিবেন।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।