শান্তির ধর্ম প্রকৃত ইসলামের উপর একটি অন্যন্য সাধারন ওয়েবসাইট


একজন মুসলমান কি একজন হিন্দুকে নমস্কার বলতে পারেন?


অনেকেই এটা বলে থাকেন, একজন মুসলমান একজন হিন্দুকে নমস্কার বলতে পারে না কারন নমস্কার কথাটার অর্থ আপনার পায়ে মাথা নত করলাম। আমি এই ব্যাখ্যার সাথে একমত নই। আমার বেশ দীর্ঘ লেখাপড়ার জীবনে বেশ কিছু ভাল হিন্দু শিক্ষক আছেন যাদের সাথে সময় পেলে এখনও দেখা করি এবং তাদেরকে নমস্কার বলে সন্মোধন করি। যখন তাদেরকে নমস্কার বলি তারাও অত্যন্ত ভদ্রতার সাথে আমাকে নমস্কার বলেন। তাহলে তারাও কি আমাকে বলেন “আপনার পায়ে মাথা নত করলাম।“

Muslim-Hindu

স্পস্টতই ব্যাপারটি আসলে মোটেও তেমন কিছু না। আমি যেমন তাদেরকে নমস্কার বলে ভদ্রতা দেখাই তারাও একই শব্দ ব্যবহার করে আমার ভদ্রতার জবাব দেন। কাজেই যারা বলছেন একজন মুসলমান একজন হিন্দুকে নমস্কার বলতে পারেন না তারা হয়ত না বুঝেই এই কথাটা প্রচার করছেন অথবা সাম্পদায়িক সম্পীতিতে উস্কানি দিচ্ছেন। আমরা বাংলাদেশে মুসলমান, হিন্দু, খৃস্টান, বৌদ্ধ এবং অন্যান্য ধর্মবিশ্বাসের মানুষরা শান্তিতে বাস করতে চাই। যার যার ধর্ম  সবাই শান্তিপুর্নভাবে পালন এবং প্রচার করবে এটাই প্রকৃত ইসলাম ধর্মের শিক্ষাও। কারন মহান আল্লাহ পবিত্র কুরআনে বলেছেন “ধর্মের ব্যাপারে কোন জবরদস্তি নেই।” ধর্মের ব্যাপারে জবরদস্তি করা হল মহান আল্লাহর ইচ্ছার বিরুদ্ধে কাজ করা।

[10 সূরা ইউনুস 99] আর তোমার পরওয়ারদেগার যদি চাইতেন, তবে পৃথিবীর বুকে যত মানুষ রয়েছে, তাদের সবাই ঈমান নিয়ে আসত সমবেতভাবে। তুমি কি মানুষের উপর জবরদস্তী করবে ঈমান আনার জন্য

[109 সূরা কাফিরুন 6] তোমাদের ধর্ম তোমাদের জন্যে এবং আমার ধর্ম আমার জন্যে। 

[6 সূরা আল্ আন-আম 107]  যদি আল্লাহ চাইতেন তবে তারা (মুশরিকরা) শেরক করত না। আমি তোমাকে তাদের সংরক্ষক করিনি এবং তুমি তাদের কার্যনির্বাহী নও।

মহান আল্লাহ আমাদের শান্তির ধর্ম প্রকৃত ইসলাম বুঝার এবং পালন করার তৌফিক দিন (আমিন)। সবাইকে ধন্যবাদ।


মন্তব্য করুন

আপনার ই-মেইল এ্যাড্রেস প্রকাশিত হবে না। * চিহ্নিত বিষয়গুলো আবশ্যক।

*